• ২০২২ অক্টোবর ০৩, সোমবার, ১৪২৯ আশ্বিন ১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:১০ পূর্বাহ্ন
English
পরিচালনাপর্ষদ
আমাদের সাথে থাকুন আপনি ও ... www.timebanglanews.com

ধ্বংস হচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দরের মেয়াদোত্তীর্ণ ৩৮২ কন্টেইনার

  • প্রকাশিত ১০:১০ পূর্বাহ্ন সোমবার, অক্টোবর ০৩, ২০২২
ধ্বংস হচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দরের মেয়াদোত্তীর্ণ ৩৮২ কন্টেইনার
ছবি সংগ্রহীত
এ,কে,সুমন- নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম বন্দরে দীর্ঘদিন ধরে পড়ে থাকা নিলাম অযোগ্য ও মেয়াদোত্তীর্ণ ৩শ ৮২ কন্টেইনার পণ্য ধ্বংস কার্যক্রম শুরু করেছে কাস্টমস হাউস। প্রতিদিন গড়ে ২৫ থেকে ৩০ কন্টেইনার পণ্য ধ্বংস করা হবে। আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে এই কার্যক্রম। পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি নিয়ে রবিবার সকালে নগরের হালিশহর আনন্দবাজার এলাকায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ডাম্পিং স্টেশনের পাশে ৫ একর খালি জায়গায় এসব পণ্য ধ্বংস কার্যক্রম শুরু হয়।

এবার এ রকম ১শ ১১ লটের ৩৮২ কন্টেইনার পন্য ধ্বংস কার্যক্রম শুরু করেছে শুল্ক বিভাগ।

নিয়ম অনুযায়ী আমদানি পণ্য ৩০ দিনের মধ্যে বন্দর থেকে খালাসের নোটিশ দেয় শুল্ক কর্তৃপক্ষ। ১৫ দিনের মধ্যে পণ্য খালাস না নিলে সেসব পণ্য নিলামে তোলা হয়। এরমধ্যে যেসব পণ্যের মেয়াদ থাকে না অথবা পচে যায় সেগুলোর ধ্বংস কার্যক্রম পরিচালনা করে কাস্টমসের নিলাম শাখা।

২ থেকে ১৫ বছর ধরে পড়ে থাকা কনটেইনারগুলোতে রয়েছে- পেঁয়াজ, আদা, আপেল, হিমায়িত মাছ, মহিষের মাংস, সানফ্লাওয়ার অয়েল ও কফিসহ বিভিন্ন পণ্য । এর মধ্যে ১৩৬টি বন্দরে রেফার্ড কনটেইনার, ৩২টি ড্রাই কনটেইনার। বাকি ২১৪টি বিভিন্ন অফডকে থাকা ড্রাই কনটেইনার।

কর্তৃপক্ষ জানান, বর্তমানে চট্টগ্রাম বন্দরে মোট ধারণ ক্ষমতার ১৫ ভাগ কন্টেইনার নিলাম যোগ্য রয়েছে। নিলাম ও মেয়াদোত্তীর্ণ কন্টেইনার এভাবে বন্দর থেকে বের করলে বন্দরের গতিশীলতা আরও বাড়বে বলে মনে করেন তারা।

এসব কন্টেইনারের থাকা রাসায়নিক ও মেডিকেল পণ্য আলাদা স্থানে ধ্বংস করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলেও জানান

কতৃপক্ষ।

সর্বশেষ