• ২০২৩ জানুয়ারী ৩১, মঙ্গলবার, ১৪২৯ মাঘ ১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০১ অপরাহ্ন
English
পরিচালনাপর্ষদ
আমাদের সাথে থাকুন আপনি ও ... www.timebanglanews.com

একাত্তরে বাংলাদেশ ন্যায়বিচার পায়নি: ইমরান খান

  • প্রকাশিত ১১:০১ অপরাহ্ন মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০২৩
একাত্তরে বাংলাদেশ ন্যায়বিচার পায়নি: ইমরান খান
ছবি সংগ্রহীত
টাইমবাংলা নিউজ ডেস্কঃ

একাত্তরে বাংলাদেশ ন্যায়বিচার পায়নি, আর এখনও সে ধারা পাকিস্তানে বহাল আছে বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। গুলিবিদ্ধ হওয়ার একদিন পর হাসপাতাল থেকে দেয়া ভাষণে তিনি একথা বলেন। এসময় তিনি দাবি করেন, সরকারবিরোধী আন্দোলন ঠেকাতেই তাকে হত্যাচেষ্টার পরিকল্পনাকারী পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ।

গুলিবিদ্ধ হওয়ার দ্বিতীয় দিনে হাসপাতাল থেকেই মুখ খোলেন ইমরান খান। তার অভিযোগ সরকার বিরোধী আন্দোলন ঠেকাতেই তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। ক্ষমতাচ্যুতির পেছনে আবারও বিদেশি ষড়যন্ত্রকেই দায়ী করেন তিনি।

বক্তব্যের একপর্যায়ে বাংলাদেশের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ১৯৭০ সালের সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জয়ী হলেও পশ্চিম পাকিস্তান তাদের অধিকার বুঝিয়ে দেয়নি। বাংলাদেশের সঙ্গে ন্যায়বিচার হয়নি।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, পূর্ব পাকিস্তানে কী ঘটেছিল? নির্বাচনে জয়লাভ করে যাদের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার কথা তাদের আমরা অধিকার বুঝিয়ে দিইনি। এখনও তাই হচ্ছে, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ আর ২০২২ সালে পাকিস্তানের রাজনীতির চিত্র একই। পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় নির্বাচিত দলটিকে ধ্বংস করে, এখন তারা আমাকে শেষ করে দিতে চাইছে।

ইমরান খান বলেন, আমার ওপর হামলা হবে এটা আমি আগেই বুঝেছিলাম। ওয়াজিরাবাদ বা গুজরাতে আমাকে হত্যার পরিকল্পনা করে। এর কারণ দুর্নীতি প্রশ্রয় না দিয়ে আমি জনগণের জন্য লড়ছি। এ লড়াই থামতেই অনাস্থা ভোটে হারানোর ষড়যন্ত্র হয়েছে। এতে নির্বাচনক কমিশনকেও সামিল করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে এ হামলার পরিকল্পনাকারী দাবি করে তিনি বলেন, পিটিআইয়ের জনসমর্থনে ভয় পেয়েই এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

এর আগে, হাসপাতালেই দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন ইমরান খান। এতে আলোচনা হয় দলের পরবর্তী কর্মসূচি নিয়ে।

সর্বশেষ