• ২০২১ Jun ১৩, রবিবার, ১৪২৮ জ্যৈষ্ঠ ৩০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:০৬ অপরাহ্ন
English

জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির ৩৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

  • প্রকাশিত ০৭:০৬ অপরাহ্ন রবিবার, Jun ১৩, ২০২১
জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির ৩৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

এ টি এম ফিরোজ মন্ডল, বিশেষ সংবাদাতাঃ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ মে-২০২১ জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির ৩৮ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠিত হয়। তাৎপর্যপূর্ণ এই দিনে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ বেলাল হোসেন সহ প্রতিটি নেতা-কর্মীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও প্রাণঢালা অভিনন্দন জানান।

এবারে কোভিড ১৯ ( করোনা নামক ভাইরাসের)  কারনে সামাজিক দুরত্ব রেখে  সীমিত আকারে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়। 

 জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি দিবসটি উপলক্ষ্যে তার বাণীতে বলেন, তাৎপর্যপূর্ণ এই দিনে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ বেলাল হোসেন সহ প্রতিটি নেতা-কর্মীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও প্রাণঢালা অভিনন্দন জানান।

১৯৮৩ সালে এই দিনে সাবেক সফল রাষ্ট্রনায়ক এবং জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, স্বেচ্ছাশ্রম, অর্থনৈতিক মুক্তি ও ইসলামী মূল্যবোধ শ্লোগানে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি প্রতিষ্ঠা করেন। 

আমরা বিশ্বাস করি, পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ-এর স্বপ্নের নতুন বাংলাদেশ গড়তে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি সব সময় জাতীয় পার্টির ভ্যানগার্ড হিসেবে কাজ করবে। 

বর্তমান সময়ে বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায়, বিশ্ব আজ এক মারাত্মক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি। এমন সংকটে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দুঃস্থ্য ও অসহায় মানুষের পাশে ছিলেন। তাই, আমরা পল্লীবন্ধুর আদর্শে আজীবন হতদরিদ্র্যের পাশে থাকবো। পাশে থাকবে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি।

এ উপলক্ষ্যে আমি বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিককে অভিনন্দন জানান।

এছাড়াও  জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় নেতা-কর্মীদের অভিনন্দন জানিয়ে জাতীয় পার্টি মহাসচিব বলেন, মানুষের সেবা করতেই পল্লীবন্ধু জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি প্রতিষ্ঠা করেছেন। জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি অত্যন্ত সুনামের সাথে পল্লীবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে এগিয়ে যাচ্ছে।

আজ দুপুরে জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কার্যালয় কাকরাইল মিলনায়তনে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন। 

এসময় সভাপতির বক্তব্যে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং জাতীয় পার্টি ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি,  বলেন,  জীবিত এরশাদের চেয়ে প্রয়াত এরশাদ অনেক বেশি শক্তিশালী। দেশের প্রতিটি প্রান্তে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর সমর্থক আছে, তারা লাঙল মার্কয় ভোট দিতে চায়। সাধারণ মানুষ জাতীয় পার্টিকে আরো শক্তিশালী সংগঠন হিসেবে দেখতে চায়। তাই জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করতে সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, তাঁর নির্বাচনী এলাকা সোনারগাঁও এর ১২০টি ওয়ার্ডে জাতীয় পার্টির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কমিটি আছে। জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক শক্তি দেখে ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল ষড়যন্ত্র করছে। তিনি বলেন,  ষড়যন্ত্রকারীরা কখনোই সফল হবে না ।

এর আগে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় পার্টি ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি এবং জাতীয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোঃ বেলাল হোসেন জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন। দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর প্রকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা সভায় বক্তৃতা করবেন- জাতীয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো: বেলাল হোসেন, গোলাম মোস্তফা, এমএ রাজ্জাক খান, লোকমান হোসেন ভুইয়া রাজু, তরিকুল ইসলাম বাবু। 

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় পার্টির সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য- মো: হুমায়ুন খান, মাসুদুর রহমান মাসুম, মাহমুদ আলম, সমরেশ মন্ডল মানিক, জাপা কেন্দ্রীয় নেতা- মনিরুজ্জামান টিটু, বিএম নুরুজ্জামান, শ্রী রতন সরকার, শরীফ আশরাফুল আলম, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি নেতা  মঞ্জুর মোরশেদ ভূঁইয়া  আবুল কালাম আজাদ কিবরিয়া, মো: শাহজাহান, মীর পলাশ, ইদি আমীন এ্যাপোলো, আলামগীর মুনকার হোসেন, ওয়াসিম, হাবিবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম, আবু তালেব চৌধুরী জিসান  লোকমান ভুইয়া রাজু, মোঃ শাহজাহান মিয়া, জায়েদুল ইসলাম,আবুল কালাম কিবরিয়া,  জাহিদ, কেন্দ্রীয় নেতা  মোস্তাফিজুর রহমান, এ রাজ্জাক খান,হুমায়ুন খান,শরীফ আশরাফুল আলম,খলিলুর রহমান বাবু,বাবু রতন সরকার, ডাঃ আলফাজ, মিজানুর রহমান , এ টি এম ফিরোজ মন্ডল, আলমগীর হোসেন, মোবারক হোসেন, মুনকার মিয়া তুহিন, আবু তালেব চৌধুরী জিসান,  মোঃ রফিকুল ইসলাম  সহ  মহানগর উত্তর দক্ষিণ ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ  উপস্থিত ছিলেন ।।


সর্বশেষ