• ২০২৪ এপ্রিল ২২, সোমবার, ১৪৩১ বৈশাখ ৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:০৪ অপরাহ্ন
English
পরিচালনাপর্ষদ
আমাদের সাথে থাকুন আপনি ও ... www.timebanglanews.com

মাঠভর্তি দর্শক বুকভরা আশা নিয়ে ফিরলেন ঘরে

  • প্রকাশিত ০১:০৪ পূর্বাহ্ন সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
মাঠভর্তি দর্শক বুকভরা আশা নিয়ে ফিরলেন ঘরে
টাইম বাংলা
শহীদুর রহমান জুয়েল ( সিলেট জেলা প্রতিনিধি)

সিলেটের ম্যাচ শুরু হবার আগেই দর্শকরা লাইন ধরে মাঠে ঢুকছেন। প্রবেশ পথে লম্বা  লাইন। হাতে সিলেট স্ট্রাইকার্স এর ব্যানার। গালে শরীরে রঙ-তুলির আচঁড়ে 'শুভ কামনা সিলেট' এমন শুভ কামনা জানিয়ে সমর্থকদের ভীড়, ভিআইপি গ্যারারির কিছু অংশ বাদে তিল পরিমাণ জায়গা ছিল না।

মাঠভর্তি দর্শক বুকভরা আশা নিয়ে হারের বৃত্তে ঘুরপাক খেতে থাকা সিলেট স্ট্রাইকার্সকে উৎসাহ যোগাতে মাঠে এসেছিলেন। আশা করেছিলেন আজকের ম্যাচে অন্তত পক্ষে জয় উপহার দেবে সিলেট স্ট্রাইকারস। কিন্তু না মাঠভর্তি দর্শক বুকভর্তি হতাশা নিয়ে ফিরছে ঘরে। টানা হারের লজ্জা এড়াতে পারলো না সিলেট স্ট্রাইকারস তিন গ্যালারিভর্তি থাকা হাজার হাজার দর্শকদের হতাশ করলো সিলেট স্ট্রাইকার্স।


এবারের বিপিএলের বরাবর মতো বিভিন্ন সমালোচনা নিয়ে শুরু হয়বপ্রাণ ফিরবে সিলেটে। ফিরলো তবে সহসাই নয়। প্রাণ ফিরলো এবারের বিপিএলের অষ্টম দিন, সিলেট পর্বের চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় অর্থাৎ ১৬তম ম্যাচে। 

আজকের টস জিতে সিলেটের অধিনায়ক মাশরাফি বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। মাঠে খেলোয়াড়রা ডুকতেই দর্শকদের হৈ-হুল্লোরে মাতিয়ে তুলেছিলেন স্টেডিয়াম। প্রতি বলে বলে সমর্থকদের প্রাণান্ত উচ্ছাসে যেন স্টেডিয়াম প্রাণ ফিরে পেয়েছিল, প্রাণ ফিরে পেয়েছিল ক্রিকেট। 

সিলেটের ইনিংস

বল হাতে মোহাম্মদ ইমরান ৩.৩ ওভার বোলিং করে ২৯ রান দিয়ে ৪ ইউকেটের দেখা পান।


এর আগে, বিপিএল এর ১৬ তম ম্যাচে ফরচুন বরিশালের সাথে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন দ্যা ম্যাশ। তাতেই যেন ব্যাকপুটে চলে যায় সিলেট।  ব্যাটিং করতে নেমে ফরচুন বরিশাল পুরো ২০ ওভার খেলে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৮৬ রান। ইনিংস বিরতি শেষে সিলেট স্ট্রাইকারস মাঠে নামবে ১২০ বলে ১৮৭ রানের বিশাল টার্গেট নিয়ে।


ফরচুন বরিশাল ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৪ রানে ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল ও ৩৩ রানে প্রিতম কুমারকে হারালেও পাকিস্তানি ক্রিকেটার আহমেদ শেহজাদের ৬৬ রান ভর করে ও শেষের দিকে মাহমুদউল্লাহর ৫১ রানের ঝড়ে ইনিংসে দলীয় রান দাঁড়ায় ১৮৬।  পাকিস্তানি ক্রিকেটার আহমেদ শেহজাদের ৬৬ রান করতে খরচ করেন ৪১ বল। এতে ২ টি ছয় ও ৯ টি চারের মার রয়েছে। আর মাহমুদউল্লাহ ইনিংসটি বলে ২ ছয় ও ৭ চারে সাজানো।

এছাড়া সৌম্য সরকার ১৭ বলে ২০ রান, মুশফিকুর রহমান ১৯ বলে ২২ রান ও মেহেদী মিরাজ ৬ বলে ১৫ রানের এক কার্যকরী ইনিংস খেলেন।

ফরচুন বরিশাল: ১৮৬/৫ (২০ ওভার)

সিলেট স্ট্রাইকার্স: ১৩৭/১০ (১৭.৩ ওভার)

ফল: ফরচুন বরিশাল ৪৯ রানে জয়ী।

সর্বশেষ