• ২০২৩ জানুয়ারী ৩১, মঙ্গলবার, ১৪২৯ মাঘ ১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:০১ অপরাহ্ন
English
পরিচালনাপর্ষদ
আমাদের সাথে থাকুন আপনি ও ... www.timebanglanews.com

জালালাবাদে অসাধু চক্রের বদ নজরে রেমিট্যান্স যোদ্ধা

  • প্রকাশিত ১০:০১ অপরাহ্ন মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০২৩
জালালাবাদে অসাধু চক্রের বদ নজরে রেমিট্যান্স যোদ্ধা
টাইম বাংলা নিউজ
মোঃ এবাদুল্লাহ কক্সবাজার, জেলা প্রতিনিধি


কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলার জালালাবাদে বাড়ি নির্মাণ করতে গিয়ে অসাধু চক্রের বদ নজরে পড়েছে রেমিট্যান্স যোদ্ধার পরিবার। একেরপর এক হামলা ভাংচুর  করে যাচ্ছে এ চক্রটি। আইনের আশ্রয় নিয়ে ও কোন স্থায়ী সমাধান পাচ্ছে না বলে জানান ভূক্তভোগীরা।


জানা যায় , উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের ফরাজী পাড়ার মোহাম্মদ শফির ছেলে সৌদি প্রবাসী

ছৈয়দ করিম বাড়ির পার্শ্ববর্তী ৩০ শতক জায়গা নিয়ে বাড়ি নির্মাণ কাজ শুরু করে প্রায় ২ বছর আগে। শুরুতে অসাধু চক্রের বদ নজরে পড়ে এই রেমিট্যান্স যোদ্ধা । এই  চক্র বিভিন্ন সময় নানা অজুহাতে হামলা, ভাংচুর সহ বিভিন্ন অত্যাচার নির্যাতন করে আসছে প্রবাসীর স্ত্রী, সন্তানদের। অনেক সময় বিভিন্ন লোকজন দিয়ে জায়গা পাবে বলে হামল ও ভাংচুর করে। বিচার শালীশের আয়োজন করলে এরা সরে পড়ে। এ ঘটনায় ঈদগাঁও থানায় অভিযোগ ও আদালতে চাঁদাবাজির মামলা করা হয়েছে। এ ভাবে প্রতিনিয়ত , বিচার, বৈঠক, থানা, আদালতে ঘুরতে ঘুরতে সর্বশান্ত হচ্ছে এ রেমিট্যান্স যোদ্ধার পরিবার।

অভিযোগ করলে কিছু দিনের জন্য এরা নিভৃত হলে ও পরে আবার ভিন্ন কৌশলে প্রয়োগ করে। ২৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় ১০/১৫ জনের সশস্ত্র সংঘবদ্ধ  চক্রের নেতৃত্বে কিছু ভাড়াটিয়া বাহিনী  অতর্কিত টিনের ঘেরা- বেড়া ভাংচুর করে। এ সময় প্রবাসী ছৈয়দ করিমের স্ত্রী রাশেদা আক্তার এগিয়ে আসলে তাকে কিরিচ দা দিয়ে দৌড়ায় এবং প্রকাশ্যে হুমকি- ধমকি দিয়ে সশস্ত্র সহড়া দেয়। 

এলাকার লোকজন জানান, দীর্ঘদিন ধরে এ প্রবাসী পরিবারকে চরম ভাবে হয়রানি করে আসছে  এ চক্র। 

 ছৈয়দ করিমের স্ত্রী রাশেদা বেগম জানান, এদের বাড়িতে আবারো হামলা ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে টাকার বিনিময়ে আগত 

স্থানীয় ও বহিরাগত ১৫ থেকে ২০ জনের সন্ত্রাসী  বাহিনী।  ভূক্তভোগীরা প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

স্থানীয় মেম্বার নুরুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন , জায়গার বিরোধ নিয়ে এ ঘটনা চলমান রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে। স্থানীয় ভাবে বসলে সমাধান করা সম্ভব হবে।

প্রতিপক্ষের শামসুল আলম জানান, এদের বাড়ির সামনে তাদের ক্রয়কৃত জায়গা রয়েছে।  এ ব্যাপারে  থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ এড়াতে এলাকাবাসী প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সর্বশেষ